৬ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৪:০০; সোমবার ; ২৫ জানুয়ারী ২০২১

ব্লগ

Abu Sumain

ভার্স্কয অপসারণ নিয়ে মৌলবাদ কিংবা উগ্রপন্থা নতুন করে জেগে উঠেছে তা নয়। তারা নানা সময়ে নানা ইস্যুতে দেশকে অস্থিতিশীল করে আসছে। তা বেশ পুরোনো ঘটনা। তারা তো দেশ স্বাধীন হোক তাও চায়নি। এর মাশুলও এই জাতি কম দেয়নি। তারপরও তারা তাদের মতোই ভাবে তাদের মতোই গুঁড়ামীর মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে।

মৌলবাদ কোনো দেশে শান্তি বা সমৃদ্ধি এনেছে তার নজির নেই। তারা কেবল রাষ

Abu Sumain

৫ ডিসেম্বর, ১৯৮৭ সাল। এই দিনে স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র গণআন্দোলনে চকরিয়ায় পুলিশের গুলিতে দৌলত খাঁন শহীদ হয়েছিল। দৌলত খাঁন এতদাঞ্চলে স্বৈরাচার বিরোধী ছাত্র গণআন্দোলনে একমাত্র শহীদ ছাত্রনেতা। তিনি অবিভক্ত চকরিয়া উপজেলা জাতীয় ছাত্রলীগের সহসভাপতি ছিলেন।

৫ ডিসেম্বর সারা দেশে ৮ দলীয় জোট, ৭ দলীয় জোট ও ৫ দলীয় বাম জোট উপজেলা ঘেরাও কর্মসূচী ঘোষণা করে। ওই ঘে

Noimage

২৪ নভেম্বর ২০২০, ২১:৪০

আমার স্কুলের জন্যে প্রার্থনা

Abu Sumain

'ছুটির দিনে বই' সিরিজ লেখার ফাঁকে হঠাৎ করে আজ একটি গ্রামীন হাইস্কুলের সাতকাহন নিয়ে কিছু বলতে ইচ্ছে করলো। এটি গ্রাম বাংলার আর দশটা স্কুল- কলেজের মতই সাধারণ ভাবে গড়ে উঠা শিক্ষায়তন। বৃটিশ ভারতে ইংরেজ শাসন আমলের শেষ দিকে বিশেষ করে বঙ্গ-ভঙ্গের পরে বাংলার নানা স্থানে একযোগে অসংখ্য ছোট বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের গোড়াপত্তন হতে থাকে।

বৃটিশ বিরোধী আন্দোলন খা

Abu Sumain

করোনা মহামারীতে পর্যদুস্ত সারাবিশ্ব। এরই মধ্যে আক্রান্ত হয়েছে ৫ কোটি ৭৯ লক্ষাধিক মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ১৩ লাখ ৭৭ হাজারেরও অধিক মানুষের। প্রথম ধাপের আক্রমণ শেষ করে দ্বিতীয় ধাপে আরও আগ্রাসী হয়েছে ভাইরাসটি। এমন দুঃসময়ে মানুষের আশা, ভ্যাকসিন আসবে। এ মহামারী থেকে নিস্তার পাবে।

বিশ্বের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনাভাইরাসের একমাত্র সমাধান হলো, বৈশ্বি

Noimage

২০ নভেম্বর ২০২০, ১৪:৩৮

আমি রোহিঙ্গা নয়

Abu Sumain

আপদ, বিপদ ও মসিবত থেকে কক্সবাজারবাসী রক্ষা পাবে কি?

কক্সবাজার জেলার স্থায়ী/প্রকৃত বাসিন্দারা বড়ই বিপদে। জেলাবাসীকে কোনভাবেই আপদ, বিপদ, মসিবত থেকে নিস্তার পেতে দিচ্ছে না। শুধুমাত্র কক্সবাজার জেলাটি মিয়ানমার সীমান্তবর্তী হওয়ায় আমাদের কপালে এমন দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। ভোটার হতে গেলে বিপদ, জন্ম নিবন্ধন করতে আপদ, দূরে কোথাও গাড়ী যোগে গেলে ইয়াবার মসিবত

Abu Sumain

সিলেট মহানগর পুলিশের বন্দর বাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস.আই আকবর হোসেন ভূঁইয়ার শেষ রক্ষা হল না। এ ফাঁড়িতে দায়িত্ব নেয়ার পর থেকে এস.আই আকবর নিরীহ অনেক মানুষকে নানা কায়দায় আটকিয়ে প্রতিনিয়ত হয়রানি করে টাকা আদায় করেছে। এভাবে মাত্র ১০ হাজার টাকা আদায়ের জন্য রায়হান আহমদ নামক এক যুবককে আটকিয়ে ফাঁড়িতে নিয়ে সারারাত নির্যাতন করেন। পরে রায়হান মারা যায়। তখন পু

Noimage

০৫ নভেম্বর ২০২০, ১৩:১১

কখনোই হার না মানা বাইডেন

Abu Sumain

বয়স এখন ৭৭!

দীর্ঘ প্রায় ৫০ বছরের রাজনৈতিক জীবন তার। হোয়াইট হাউসে যাবার যে স্বপ্ন বহুদিন থেকে লালন করে আসছেন, সেই স্বপ্নের পথ এখন লড়াইয়ে লিপ্ত!

১৯৮৭ সালে একবার আমেরিকার প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার জন্য মাঠে নামেন। ডেমোক্র্যাট দলের মনোনয়ন চেয়েছিলেন। কিন্তু তার বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠে যে, তিনি অন্যের লেখা চুরি করে নিজর নামে চালিয়েছেন! এই অভিযোগের স

Abu Sumain

আমি সড়কটির একজন নাখান্দা যাত্রী। প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করা ছাড়া কোন গতি আমার নেই। তবে আমি কেন? প্রতিদিন ৫টি ইউনিয়নের অর্ধ লক্ষাধিক যাত্রী এ সড়ক দিয়ে যাতায়াত করছে। সড়কটির নাম একাধিকবার পরিবর্তন হয়েছে। কিন্তু সড়কের কোন পরিবর্তন হয়নি। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর শিকলঘাট হয়ে কাকারা মাঝের ফাঁড়ি পর্যন্ত সড়কটির নামকরণ করা হয়েছিল ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা শহী

Abu Sumain

ডোনাল্ড ট্রাম্প নিয়ে আমি নিছক মজা করি। তাকে পছন্দ বা সমর্থন করার কোনো প্রশ্নই আসলে উঠে না।বাস্তবে তিনি একজন প্রতিক্রিয়াশীল প্রেসিডেন্ট মনে হয় আমার। যদিও আমার পছন্দ-অপছন্দ দিয়ে তার কিছু যায় আসে না। তবুও আমি তো এই পৃথিবীর একজন নাগরিক। আমার মতো কত মানুষই আছেন যারা ট্রাম্পের বিরূপ আচরণ নিয়ে সত্যিকার অর্থে হতাশ, ক্ষুব্ধ।

শুরুর দিকে ট্রাম্পকে আমার জোক

Abu Sumain

‘সন্ধ্যার পর বাইরে থাকা যাবে না, একা একা কোথাও যাওয়া যাবে না, যাচ্ছে তাই পোশাক পরা যাবে না। বন্ধুদের সাথে ট্যুরে যাওয়া যাবে না। কারণ এসব কোথাও আমি নিরাপদ নই। তারপর একদিন এলো আমি স্বামীর সাথে নিরাপদ নই, দিনের আলোতেও নিরাপদ নই, আমি বাইরে নিরাপদ নই। এখন জানলাম আমি আমার ঘরেও নিরাপদ নই। আমি মায়ের আঁচল তলেও নিরাপদ নই। আমার বাবা, আমার ভাই, আমার স্বামী আমা

Noimage

১৬ অক্টোবর ২০২০, ১৬:২০

কে কখন যে সাংবাদিক হয়ে যাচ্ছে!

Abu Sumain

১৯৯৭ সালের জুলাই মাস। ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী রিলিফ কার্যক্রম চলছিল। বাম ছাত্র সংগঠনের সক্রিয় কর্মী ছিলাম। সে সুবাদে একটি সেচ্চাসেবী সংগঠনের সঙ্গে কাজ করতে গিয়ে সাংবাদিকতা পেশায় জড়িয়ে পড়েছিলাম। প্রখ্যাত সাংবাদিক কে জি মুস্তাফা সম্পাদিত দৈনিক মুক্তকণ্ঠ পত্রিকায় চকরিয়া প্রতিনিধি হিসেবে কাজ শুরু করি।

একই সময়ে চট্টগ্রামের কাগজ দৈনিক ঈশানেও কাজ করি। মাসছয়েক

Abu Sumain

মাঝে মাঝেই ভাবি আর লিখবো না। লিখে কি হয়? শুধু শুধু শত্রু বাড়ে। কিন্তু চারপাশ দেখে চুপ থাকতে পারি না। নিজের ভেতরে একটা তাগাদা অনুভব করি। জানি সবই অরণ্য রোদন। 

এদেশের সাংবাদিক বুদ্ধিজীবী আমলাদের একটা বড় অংশ মনে এবং মগজে তীব্র ছাত্রলীগ বিদ্বেষ লালন করে। শুধু ছাত্রলীগ নয় এরা মোটামুটি ছাত্র রাজনীতিকেই ঘৃণা করে।

আমার ব্যক্তিগত পর্যবেক্ষণ : হ