৮৯০ মিনিট আগের আপডেট; রাত ২:৩০; শনিবার ; ২৯ মে ২০২০

চকরিয়া-পেকুয়াবাসির জন্য সরকারের দরজা সর্বদা খোলা : চকরিয়ায় বিশাল জনসভায় ওবায়দুল কাদের

মুকুল কান্তি দাশ,চকরিয়া ২২ জানুয়ারী ২০২০, ১৯:১৯

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশে-বিদেশে মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ। বিভিন্ন ক্ষেত্রে উন্নয়ন হয়েছে। আগামী ১ বছরের মধ্যে দেশে প্রতিটি বিদ্যুতের আলোতে আলোকিত হয়ে উঠবে। শেখ হাসিনার উন্নয়নে খুশি ও বিশেষ মর্যাদা দেয়ায় পুরুষের সাথে পাল্লা দিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে মহিলারাও। 
 
সংবর্ধনার জবাবে প্রধান অতিথি ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, রোহিঙ্গাদের নিয়ে আমাদের ধৈর্য্যের বাঁধ ভেঙ্গে যাচ্ছে। বিশ্ব বিবেকের কাছে আহবান জানাচ্ছি যত দ্রুত সম্ভব রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর ব্যবস্থা করতে।
 
গাম্বিয়ার করা চলমান রোহিঙ্গা সংক্রান্ত মামলাসহ রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে প্রতিবেশী দেশ চীন ও ভারতসহ প্রভাবশালী দেশগুলোর সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি স্থানীয় কৃষি ও শিল্প বিষয়ে বলেন, খাদ্য উদ্বৃত্ত এই চকরিয়া।
 
কৃষকরা অনেক কষ্ট করে লবণ ও চিংড়ী উৎপাদন করলেও কতিপয় সিন্ডিকেটের কারসাজিতে চাষীরা ন্যায্যমূল্য থেকে বঞ্চিত হয় বলে শুনেছি। স্থানীয় প্রশাসনকে নির্দেশ দেন লবণ ও চিংড়ী বিকিকিনিতে সিন্ডিকেট মুক্ত রাখতে এবং চাষীরা যাতে লবণ ও চিংড়ী বিক্রয় করে ন্যায্যমূল্য পায় সে উদ্যোগ নেয়া হবে।
 
 চকরিয়া-পেকুয়া কেন্দ্রীক প্রতিটি সড়কের উন্নয়ন ও মেরামত চলছে। চকরিয়া পৌরশহরের চিরিংগা স্টেশনে মহাসড়ক পারাপারের জন্য একটি ফ্লাইওভার অচিরেই নির্মিত হবে। চকরিয়া সরকারি কলেজের বাইন্ডারী ওয়াল এক সপ্তাহের মধ্যে নির্মাণ কাজ শুরু করতে বলেন জাফর আলম এমপিকে। সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগে টানা দ্বিতীয়বার সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ায় তাকে গণসংবর্ধনা দেন চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগ। 
 
২২ জানুয়ারী বুধবার বিকেলে চকরিয়া সরকারি কলেজ মাঠে দলীয় আয়োজনে সংবর্ধনা সভাটি বিশাল সমাবেশে রুপ পায়। চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব জাফর আলমের সভাপতিত্বে এবং উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর সঞ্চালনায় গণসংবর্ধনা সমাবেশ অনুষ্টিত হয়।
 
এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন- কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক মেয়র মুজিবুর রহমান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সাবেক সাংসদ খান বাহাদুর মোস্তাক আহমদ চৌধুরী, সায়মুন সরওয়ার কমল এমপি, আশেক উল্লাহ রফিক এমপি, সাবেক এমপি আবদুর রহমান বদি, জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সালাহউদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন-সম্পাদক অ্যাডভোকেট রনজিত দাশ, জেলা আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক লায়ন কমর উদ্দিন আহমদ, জিয়া উদ্দিন চৌধুরী জিয়া, জামাল উদ্দিন জয়নাল, চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুল করিম সাঈদী, চকরিয় পৌরসভার মেয়র মো.আলমগীর চৌধুরী, পেকুয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সম্মেলন প্রস্ততি কমিটির আহবায়ক আবু হেনা মোস্তফা কামাল, সদস্য সচিব আবুল কাশেম, চকরিয়া পৌরসভা আওয়ামীলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম লিটু, সাধারণ সম্পাদক আতিক উদ্দিন চৌধুরী, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা চেয়ারম্যান, শওকত ওসমান চেয়ারম্যান, মহসিন বাবুল চেয়ারম্যান, জসিম উদ্দিন চেয়ারম্যান, দুবাই মুছা, সাহাবউদ্দিন, তপন কান্তি দাশসহ আওয়ামীলীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দরা। 
 
বক্তব্যের শেষ দিকে সমাবেশে আগত লাখো জনতাকে আশ্বাস দিয়ে বলেন, আমি যেসব উন্নয়নের কথা বলেছি শুধুমাত্র সেসব নয়। চকরিয়াবাসির জন্য আমিসহ সরকারের দরজা সর্বদা খোলা রয়েছে। আপনাদের প্রতিনিধি জাফরের মাধ্যমে চাওয়া মাত্রই গুরুত্বের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে বাস্তবায়ন করা হবে। 
 
উল্লেখ্য, আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মঙ্গলবার বিকেলে কক্সবাজার পৌছে জেলা আওয়ামীলীগের প্রতিনিধি সভায় যোগদেন। বুধবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাবেক সামরিক সচিব সদ্য প্রয়াত জয়নাল আবেদিন বাচ্চুর চট্টগ্রামের লোহাগাড়াস্থ চুনতিতে গিয়ে তার কবর জিয়ারত করেন এবং শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন।
 
এরপরই তিনি বিকেলে চকরিয়া সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত সংবর্ধনা সভায় বক্তব্য রাখেন। পরে তিনি সন্ধ্যায় সড়ক পথে কক্সবাজারের উদ্যাশে রওয়ানা দেন।
 

সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ৫০৩০