২১৬ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৮:২১; বৃহস্পতিবার ; ২১ অক্টোবর ২০২১

চকরিয়া-পেকুয়ায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় মাঠে তৎপর এমপি জাফর আলম

নিজস্ব প্রতিবেদক ১৪ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৮

কুমিল্লায় ধর্মীয় গ্রন্থ অবমাননার জের ধরে কক্সবাজারের চকরিয়া ও পেকুয়ায় কোন দুষ্কৃতকারী যাতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে না পারে সেজন্য ব্যাপক তৎপরতা শুরু করেন কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম।

তিনি বুধবার বিকেল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দুই উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকায় হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন এবং চলমান শারদীয় দুর্গোৎসবের মণ্ডপগুলোতে যাতে কোন ধরণের নাশকতামূলক ঘটনা সংঘটিত করতে না পারে সেজন্য দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে ইউনিয়ন থেকে ইউনিয়নে ছুঁটে যান।

এ সময় তিনি প্রত্যেক ইউনিয়ন, ওয়ার্ডের দলীয় নেতাকর্মীদের সতর্কতার সাথে নিজ নিজ এলাকার পূজামণ্ডপসহ হিন্দু সম্প্রদায়ের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে নির্দেশনা দেন। দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে অনুরোধক্রমে এই নির্দেশনা দিয়ে নিজের ভেরিফাইড ফেসবুকেও পোষ্ট দেন।
যোগ দিলেন ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভার্চ্যুয়াল সভায় 

এদিকে কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম এমএ যোগদান করেছেন ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির (সিপিপি) ৫০ বছর পূর্তি ও আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবসে। দিবসটি উদযাপন উপলে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালী উপস্থিত ছিলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনা। কক্সবাজার মুক্তিযোদ্ধা মাঠ থেকে সংযুক্ত সিপিপি স্বেচ্ছাসেবকদের মহড়া অবলোকন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী। সেই অনুষ্ঠানে অন্যান্য নেতৃবৃন্দের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন মাননীয় সংসদ সদস্য যথাক্রমে জাফর আলম, সাইমুম সরওয়ার কমল,আশেক উল্লাহ রফিক, কানিজ ফাতেমা মোশতাক এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপরে চেয়ারম্যান লে.কর্ণেল ফোরকান আহমদ (অব) কক্সবাজার শেখ হাসিনা বিমান ঘাঁটির এওসি এয়ার কমোডর এম এ আওয়াল হোসেন, আরআরআরসি মাহবুব হোসেন (যুগ্মসচিব), জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ, পুলিশ সুপার হাসানুজ্জামান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি (ভারপ্রাপ্ত) ফরিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমানসহ জেলা প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারাগণ।

সভায় চকরিয়া থেকে অংশ নিয়ে বক্তব্য দেন সিপিপি চকরিয়া উপজেলার টিম লিডার এবং মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পশ্চিম বড় ভেওলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলা।

ভার্চ্যুয়ালী এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বাংলাদেশ সারা বিশ্বে আজকে দুর্যোগ ঝুঁকি মোকাবেলায় একটি আদর্শ দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা লাভ করেছে। আমাদের এই সম্মান যাতে বজায় থাকে সে জন্য ভবিষ্যতে সে বিষয়েও সবাইকে সচেতন থাকতে হবে এবং এই ব্যবস্থা অব্যাহত রাখতে হবে।

বুধবার (১৩ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, আমাদের ভৌগোলিক অবস্থাই এমন, প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করেই চলতে হয়। এ জন্য সরকারের বিভিন্ন সংস্থার পাশাপাশি দুর্যোগের ঝুঁকি এড়াতে সাধারণ মানুষকেও সচেতন থাকতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ভবনসহ স্থাপনা করার সময় নিয়ম মেনে করতে হবে। আগুন লাগলে, ভূমিকম্প হলে যাতে উদ্ধারকাজসহ অন্য কাজগুলো করা যায়। দুর্যোগ মোকাবেলায় আমাদের সরকার সব ব্যবস্থা নিয়েছে, অন্য কোনো সরকার এগুলোর দিকে নজর দেয়নি। যতটুকু উদ্যোগ আমরা নিয়েছি, এগুলো জাতির পিতাই শিখিয়ে গেছেন।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিষ্ঠিত সিপিপির ৫০ বছর পূর্তি এবং আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস উদযাপন উপলে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়। এতে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে সিপিপির চারটি ইউনিট উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. মো. এনামুর রহমানের সভাপতিত্বে ও প্রধানমন্ত্রীর মুখ্যসচিব আহমেদ কায়কাউসের সঞ্চালনায় এতে স্বাগত বক্তব্য দেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মোহসীন।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ১৬৯