০ মিনিট আগের আপডেট; রাত ৩:৫১; বৃহস্পতিবার ; ২৯ জুলাই ২০২১

আজ মিনায় অবস্থান করবেন হাজিরা

অনলাইন ডেস্ক: ১৮ জুলাই ২০২১, ১২:৩৮

বৈশ্বিক মহামারি করোনার মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। সৌদি আরবের অধিবাসী ও সেখানে থাকা ১৫০ দেশের নাগরিক মিলে মাত্র ৬০ হাজার মানুষ এবার হজের সুযোগ পাচ্ছেন।

হজের আনুষ্ঠানিকতার ধারাবাহিকতায় হাজিরা আজ (রোববার) মিনায় পৌঁছবেন। আগামীকাল সোমবার (১৯ জুলাই) হজের অন্যতম রোকন আরাফায় অবস্থানের দিন। এদিন হাজিরা আরাফার ময়দানে অবস্থান করবেন।

আরব নিউজের খবরে বলা হয়েছে, শনিবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মুসল্লিরা কাবাঘর তাওয়াফ করেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে তাওয়াফের কারণে এদিন ঘণ্টায় দুই হাজারের বেশি ব্যক্তি তাওয়াফ করার সুযোগ পাননি। রোববার হজযাত্রীরা মিনার উদ্দেশে রওয়ানা হবেন। রাতটি মিনায় কাটিয়ে ভোর থেকে ছুটবেন আরাফাতের উদ্দেশে। সোমবার আরাফার দিনে পালিত হবে পবিত্র হজ। 

ঐতিহাসিক আরাফাতের ময়দানে এবার হজে অংশগ্রহণকারী মুসলিম উম্মাহর উদ্দেশে খুতবাহ দেবেন শায়খ ড. বানদার বিন আবদুল আজিজ বালিলাহ। এ বছর সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ রাজকীয় ফরমানে তাকে আরাফাতের মহান দিনে খুতবা দেওয়ার জন্য অনুমোদন দেন।

মিনায় রাতযাপন হজের অন্যতম সুন্নত। রাতযাপন শেষে মুসল্লিরা সারা দিন মিনাতেই থাকবেন। এখানে জোহর, আসর, মাগরিব, এশা ও ফজরের নামাজ আদায় করা মুস্তাহাব। এখান থেকে কাল সূর্যোদয়ের পর মুসল্লিরা যাবেন প্রায় ১৫ কিলোমিটার দূরে আরাফাতের ময়দানে। 

এ ময়দানে অবস্থান হজের মূল আনুষ্ঠানিকতা (ফরজ)। এরপর কুরবানিসহ কিছু আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে শেষ হবে পবিত্র হজ।

মক্কায় আসার আগে হাজিদের ৬ হাজার জন করে কাফেলা বানানো হয়েছে। যারা প্রত্যেক ৩ ঘণ্টা পরপর মসজিদুল হারামে তাওয়াফের জন্য প্রবেশ করছেন। মসজিদুল হারামের দরজাগুলোতে ৭০’র বেশি তাপ নিয়ন্ত্রণ ক্যামেরা লাগানো হয়েছে।


সর্বমোট পাঠক সংখ্যা : ৪৯